রবিবার, ১৭ অক্টোবর ২০২১, ০১:২৪ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম:
লক্ষ্মীপুরে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে কম্পিউটার ও ক্রীড়া সামগ্রী বিতরণ লক্ষ্মীপুর পৌরসভার সম্ভাব্য মেয়র প্রার্থী আব্দুল মতলব’র ব্যাপক গণসংযোগ রায়পুরে বেদে ও অনগ্রসর জনগোষ্ঠীর শিক্ষার্থীদের মাঝে ১৫ লাখ টাকার চেক বিতরণ রায়পুরে নবনির্মিত শহীদ মিনার উদ্বোধন করলেন নুরউদ্দিন চৌধুরী নয়ন এমপি রায়পুর উপজেলা ডিজিটাল সেন্টার উদ্বোধন করেন এড. নয়ন এমপি রায়পুরে করোনা আক্রান্তদের মাঝে অক্সিজেন সিলিন্ডার বিতরণ উদ্বোধন শোক দিবসে লক্ষ্মীপুরে আওয়ামী লীগের আলোচনা সভা ও দোয়া লক্ষ্মীপুরে বিভিন্ন ইউনিয়নে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতি উপহার দিলেন নুরউদ্দিন চৌধুরী নয়ন এমপি রায়পুর হাসপাতালে করোনা রোগীদের জন্য অক্সিজেন সিলিন্ডার হস্তান্তর রায়পুরে ক্ষতিগ্রস্থ উদ্যোক্তাদের মাঝে প্রধানমন্ত্রীর প্রনোদনার চেক বিতরণ

কালকিনি পৌর মেয়রের বিরুদ্ধে ৭ মেট্রিক টন চাল চুরির অভিযোগ 

জেলা প্রতিনিধি / ৪২৭ পড়া হয়েছে:
প্রকাশের সময়: রবিবার, ১৭ অক্টোবর ২০২১, ০১:২৪ পূর্বাহ্ন

মাদারীপুরের কালকিনি পৌর মেয়র মো. এনায়েত হোসেন হাওলাদারের বিরুদ্ধে হতদরিদ্রদের জন্য বরাদ্দ ৭ মেট্রিকটন সরকারি চাল আত্মসাতের অভিযোগ তুলেছেন সংশ্লিষ্ট বর্তমান সময়ের  কাউন্সিলরেরা।
ওই পৌরসভার আটজন কাউন্সিলর বৃহস্পতিবার বিকালে জেলা প্রশাসক মো. ওয়াহিদুল ইসলাম কে বরাবর মেয়রের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ এনে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন তারা। তবে মেয়রের এনায়েতের হোসেনের দাবি, পূর্বের শত্রুতার জেরে এই অভিযোগ আনা হয়েছে।
অভিযোগে সুত্রে জানা গেছে, করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে মাদারীপুর জেলা প্রশাসকের ত্রাণ শাখা থেকে কালকিনি পৌরসভার হতদরিদ্রদের জন্য ৪ কিস্তিতে ৭ মেট্রিকটন জিআর চাল ও নগদ অর্থ বরাদ্দ দেওয়া হয়। সেই চাল ও অর্থ মেয়র কাউন্সিলরদের না জানিয়ে উত্তোলন করেন। ওই চাল কোথায় বিতরণ করেছেন তারও কোনো হদিসও মিলছে না। ফলে পৌরসভার হতদরিদ্র ও নিম্ন আয়ের মানুষ সরকারের ত্রাণ সহায়তা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। মেয়র ওই চাল ও অর্থ আত্মসাৎ করেছেন অভিযোগ করে বিষয়টি দ্রুত তদন্ত য়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণেরও দাবি জানান পৌর কাউন্সিলররা।
অভিযোগকারীদের মধ্যে- কালকিনি পৌরসভার ১, ২, ৩, ৫, ৭, ৮ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর এবং ১, ২, ৩ ও ৭, ৮, ৯ নম্বর ওয়ার্ডের সংরক্ষিত আসনের মহিলা কাউন্সিলর রয়েছে
এ বিষয়ে কালকিনি উপজেলা খাদ্য গুদামের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মিজানুর রহমান বলেন, প্রশাসকের কার্যালয় থেকে বরাদ্দকৃত ৬ হাজার ৯৮৫ কেজি (সাত মেট্রিকটন) জিআর চাল বিভিন্ন তারিখে কালকিনি পৌরসভা কর্তৃপক্ষ উত্তোলন করেছে।
কাউন্সিলরদের অভিযোগের বিষয়ে জেলা প্রশাসক মো. ওয়াহিদুল ইসলাম বলেন, “তদন্ত করা হচ্ছে। গরীবের চাল আত্মসাতের ঘটনা ঘটলে কাউকেই ছাড় দেওয়া হবেনা। এটা প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ রয়েছে। এছাড়া স্থানীয় সরকার অধিদপ্তরেরও বিষয়টি অবগত করা হয়েছে।
এ বিষয়ে জানতে চাইলে কালকিনি পৌরসভার মেয়র এনায়েত হোসেন হাওলাদার সাংবা‌দিক‌দের বলেন, “সাড়ে ৬ মেট্রিকটন চাল পাওয়া গেছে। এসব চাল পৌরসভার হতদরিদ্রদের মাঝে বন্টন করা হয়েছে। প্রত্যেকের ভোটার আইডি কার্ড, মোবাইল নাম্বারসহ তালিকা পৌরসভা কর্তৃপক্ষের কাছে রয়েছে।
তাহলে কেন কাউন্সিলররা এ অভিযোগ করলেন? জানতে চাইলে মেয়র বলেন, “পূর্বের শত্রুতা করে এই অভিযোগ আনা হয়েছে। পৌরসভা থেকে চাল বিতরণ সংক্রান্ত মিটিং- এ তাদের ডাকা হলেও অভিযোগকারী কাউন্সিলরা কেউ আসেন নি। পুরোপুরি স্বচ্ছতার সঙ্গে বরাদ্দকৃত চাল বিতরণ করা হয়েছে, এখানে কোনো দুর্নীতি হয়নি।
ইব্রাহিম রহমান অন্ত ,মাদারীপুর
Print Friendly, PDF & Email