শনিবার, ২১ মে ২০২২, ০৫:৪৬ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম:
সাউথ এশিয়া গোল্ডেন পিস এ্যাওয়ার্ড-২০২১ পেলেন শাম্মী তুলতুল লক্ষ্মীপুর সরকারি কলেজে শেখ রাসেল দেয়ালিকা উদ্বোধন লক্ষ্মীপুরে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে কম্পিউটার ও ক্রীড়া সামগ্রী বিতরণ লক্ষ্মীপুর পৌরসভার সম্ভাব্য মেয়র প্রার্থী আব্দুল মতলব’র ব্যাপক গণসংযোগ রায়পুরে বেদে ও অনগ্রসর জনগোষ্ঠীর শিক্ষার্থীদের মাঝে ১৫ লাখ টাকার চেক বিতরণ রায়পুরে নবনির্মিত শহীদ মিনার উদ্বোধন করলেন নুরউদ্দিন চৌধুরী নয়ন এমপি রায়পুর উপজেলা ডিজিটাল সেন্টার উদ্বোধন করেন এড. নয়ন এমপি রায়পুরে করোনা আক্রান্তদের মাঝে অক্সিজেন সিলিন্ডার বিতরণ উদ্বোধন শোক দিবসে লক্ষ্মীপুরে আওয়ামী লীগের আলোচনা সভা ও দোয়া লক্ষ্মীপুরে বিভিন্ন ইউনিয়নে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতি উপহার দিলেন নুরউদ্দিন চৌধুরী নয়ন এমপি

রামগঞ্জে প্রেমিকাকে ঘরে ঢুকিয়ে হামলা লুটপাট আহত-২

উপজেলা সংবাদদাতা / ৭৯২ পড়া হয়েছে:
প্রকাশের সময়: শনিবার, ২১ মে ২০২২, ০৫:৪৬ পূর্বাহ্ন

রামগঞ্জ উপজেলার কাশিমনগর দপ্তরি বাড়িতে বৃহস্পতিবার ভোর ৩টায় পরিকল্পিতভাবে প্রেমিকাকে প্রেমিকের বসতঘরে ঢুকিয়ে প্রেমিকার লোকজন হামলা চালিয়ে ভাংচুর ও লুটপাট করার অভিযোগ পাওয়া যায়। এসময় প্রেমিক রিয়াজ হোসেন ও তার পিতা আলী আহম্মদকে পিটিয়ে মারাতœক আহত করা হয়। আহতদের রামগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে
জানা যায়, উপজেলার কাশিমনগর দপ্তরী বাড়ির আলী আহম্মদের ছেলে রিয়াজ হোসেনের সাথে একই বাড়ির আঃ মতিনের মেয়ে সুমাইয়া আক্তারের সাথে ৫/৬ পূর্ব থেকে প্রেমের সম্পর্ক চলে আসছে এবং উভয় একে অপরের সাথে রাতে আধাঁরে দেখা সাক্ষাত করে। এক বছর পূর্বে বাড়ি ও এলাকার লোকজন বিষয়টি জেনে উভয় মাঝে বিয়ের মাধ্যমে সমাধান করার উদ্যোগ নেয়। কিন্তু ছেলের বাবা আলী আহম্মদ বিষয়টি না মানায় উদ্যোগটি ব্যর্থ হয়ে যায়। এতে মেয়ের বখাটে ভাই সুজন ক্ষীপ্ত হয়ে উঠে। বুধবার দিবাগত রাতে রিয়াজ ও সুমাইয়া একে অপরের সাথে মোবাইলে যোগাযোগের মাধ্যমে সুমাইয়া রিয়াজদের ঘরে যায়। বিষয়টি টেন পেয়ে বৃহস্পতিবার ভোর ৩টার দিকে প্রেমিকা সুমাইয়ার ভাই সুজন , তাজুল,নাজিম,এমরান মিলে আলী আহম্মদের বসত ঘরের দরজা ভেঙ্গে বিতরে প্রবেশ করে ঘরের আলমারীসহ আসবাবপত্র ভাংচুর ও লুটপাট করে।এ সময় বাধা দিলে বয়স্ক আলী আহম্মদ ও তার ছেলে রিয়াজকে এলোপাতাড়ি পিটিয়ে মারাত্মক আহত করে।চিৎকার শুনে আসেপাশের লোকেজন ছুটে এসে তাদেরকে উদ্ধার করে রামগঞ্জ হাসপাতালে ভর্তি করে। এ ব্যাপারে রামগঞ্জ থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে। এ ব্যাপারে সুজন ও তার মা কোহিনুর বেগম ঘরে না থাকায় তাদের বক্তব্য নেওয়া যাইনি।
প্রেমিকা সুমাইয়া আক্তার বলেন, রিয়াজের সাথে আমার ছয় বছরের সম্পর্ক। এটা সবাই জানে। আমি রিয়াজ সাথে মোবাইলে যোগাযোগ করে তাদের ঘরে যাই। পরে আমার ভাই সুজন লোকজনসহ রিয়াজদের ঘরে গেলে মারামারি হয়।
হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রিয়াজের পিতা আলী আহম্মদ বলেন, আমার ছেলে রুবেল একমাস আগে বিদেশ থেকে আসে এবং তাকে বিয়ে করানো প্রস্তুতি নেয়। এ সময় সুযোগ বুঝে সুজন পরিকল্পিতভাবে তার বোনকে আমার ঘরে ঢুকিয়ে দেয়। পরে লোকজনসহ ঘরে দরজা ভেঙ্গে বিতরে ঢুকে ঘরে থাকা ৭ ভরি স্বার্নালংকার ও নগদ ৬০হাজার টাকা লুট করে নিয়ে যায়। এ সময় বাঁধা দিলে আমাকে ও আমার ছেলেকে পিটিয়ে আহত করে।
রামগঞ্জ থানা ওসি (তদন্ত) ফজলুল হক জানান, ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারে এজাহার দায়ের করলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

শাহে ইমরান, রামগঞ্জ