শনিবার, ৩১ জুলাই ২০২১, ০৮:১২ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম:
বিনামূল্যে আরজু মনি অক্সিজেন ব্যাংকের উদ্বোধন করলেন এমপি নুরউদ্দিন চৌধুরী নয়ন এশিয়ার বৃহৎ মৎস প্রজনন কেন্দ্র পরিদর্শন করলেন এমপি নুরউদ্দিন চৌধুরী নয়ন রায়পুরে ১৩৯ পরিবারের মাঝে ঈদ উপহার বিতরণ প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে পর্যাপ্ত খাদ্য বিতরণ অব্যাহত আছে -এড. নুরউদ্দিন চৌধুরী নয়ন এমপি রায়পুরের ১০ ইউনিয়নে প্রধানমন্ত্রীর উপহার বিতরণ করেন এডভোকেট নয়ন এমপি লক্ষ্মীপুরে দুস্থদের মাঝে প্রধানমন্ত্রীর উপহার সামগ্রী বিতরণ করেন এডভোকেট নয়ন এমপি রোটারি ক্লাব অব লক্ষ্মীপুর এর ইয়ার এন্ডিং মিটিং অনুষ্ঠিত এমপি হিসেবে শপথ নিয়েছেন লক্ষ্মীপুরের এডভোকেট নয়ন লক্ষ্মীপুর-২ আসনে বিপুল ভোটে আওয়ামী লীগের প্রার্থী এডভোকেট নয়ন বিজয়ী রায়পুরে যুবলীগের উদ্যোগে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি

সংসদে দাঁড়িয়েও বিয়ে নিয়ে মিথ্যা বলেছেন নুসরাত, ভাইরাল ভিডিও

অনলাইন সম্পাদনা / ৭৬ পড়া হয়েছে:
প্রকাশের সময়: শনিবার, ৩১ জুলাই ২০২১, ০৮:১২ পূর্বাহ্ন

নিখিল জৈনের সঙ্গে সুখী দাম্পত্যে রয়েছেন এমনটাই ভাবা হতো কলকাতার অভিনেত্রী ও সাংসদ নুসরাত জাহানকে। সর্বশেষ দুর্গাপুজায়ও তারা নাচ গানে মাতিয়ে রেখেছিলেন। কিন্তু হঠাৎ করেই দৃশ্যগুলো বদলে গেল। সেই দাম্পত্যের গল্প এখন হাসির খোরাকে পরিণত হয়েছে।

কারণ নুসরাত জানিয়েছেন, স্বামী-স্ত্রীর মতো চলাফেরা করলেও নিখিলকে এখনো বিয়ে করেননি তিনি। তাই সম্পর্ক খারাপ হওয়ায় ডিভোর্স নিয়ে যে আলোচনা চলছে সেটা ভিত্তিহীন। বিয়ে না হলে ডিভোর্সের প্রশ্নই আসে না।

নুসরাতের এমন দাবির পর বেশ হইচই শুরু হয়েছে শোবিজে। প্রশ্ন উঠছে মাথায় সিঁদুর, হাতে শাখা দিয়ে প্রকাশ হওয়া স্বামী-স্ত্রীর ছবিগুলো নিয়ে। প্রশ্ন উঠছে তুরস্কে এলাহি ‘বিয়ে’, কলকাতায় গ্র্যান্ড রিসেপশনের পরও তিনি কেমন করে বিয়ে হয়নি দাবি করেন তা নিয়ে।

কঠিন এক প্রশ্ন ছুড়ে দিলেন নুসরাতকে তার রাজনৈতিক প্রতিপক্ষ বিজেপির নেতা অমিত মালব্য। তিনি বসিরহাটের তৃণমূল সাংসদ নুসরাতের একটি ভিডিও শেয়ার করেছেন টুইটারে। যেখানে দেখা যাচ্ছে নিখিলের নামাঙ্কিত চূড়া, সিঁদুর পরে রয়েছেন নুসরাত।

সংসদে দাঁড়িয়ে এমপি হিসেবে শপথ নেয়ার সময় নিজের নাম বলতে গিয়ে বলেন নুসরাত জাহান রুহি জৈন। অর্থাৎ নিখিল জৈনের বংশের পদবি ব্যবহার করে নিজের পরিচয় দিয়েছেন তিনি। ভিডিওটি ভাইরাল করেছেন নেটিজেনরা।

ভিডিওটি শেয়ার দিয়ে অমিত লেখেন, ‘বিয়ে করেছেন নাকি লিভ ইন করতেন নুসরাত, সেটা ব্যক্তিগত ব্যাপার। তা নিয়ে কেউ আলোচনা করতে রাজি নয়। তবে তিনি নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি। সংসদে তিনি নিজেকে নিখিল জৈনের বিবাহিতা স্ত্রী বলে দাবি করেন। তবে কি তিনি সংসদে দাঁড়িয়ে মিথ্যা বলেছেন?’

এমন প্রশ্ন তুলে খোঁচা দিলেও মুখ খুলেননি নুসরাত। অমিতকে পালটা জবাব দিয়েছেন তৃণমূলের রাজ্য সাধারণ সম্পাদক কুণাল ঘোষ। তিনি এটাকে নুসরাতের ব্যক্তিগত বিষয় বলে দাবি করেন।

এদিকে বিয়ে না হলে এখনো লোকসভার ওয়েবসাইটে কেন নিখিলের নাম নুসরাতের স্বামী হিসেবে জ্বলজ্বল করছে, সেই প্রশ্ন উঠছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। নেটিজেনরা খোঁচা দিতে ছাড়ছেন না নুসরাতকে।

অনেকেই আবার নিখিলের বস্ত্র বিপণির জামাইষষ্ঠীর পুরোনো বিজ্ঞাপন শেয়ার করে খোঁচা দিয়েছেন তৃণমূল সাংসদকে।