মঙ্গলবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১:৪১ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম:
লক্ষ্মীপুর পৌরসভার সম্ভাব্য মেয়র প্রার্থী আব্দুল মতলব’র ব্যাপক গণসংযোগ রায়পুরে বেদে ও অনগ্রসর জনগোষ্ঠীর শিক্ষার্থীদের মাঝে ১৫ লাখ টাকার চেক বিতরণ রায়পুরে নবনির্মিত শহীদ মিনার উদ্বোধন করলেন নুরউদ্দিন চৌধুরী নয়ন এমপি রায়পুর উপজেলা ডিজিটাল সেন্টার উদ্বোধন করেন এড. নয়ন এমপি রায়পুরে করোনা আক্রান্তদের মাঝে অক্সিজেন সিলিন্ডার বিতরণ উদ্বোধন শোক দিবসে লক্ষ্মীপুরে আওয়ামী লীগের আলোচনা সভা ও দোয়া লক্ষ্মীপুরে বিভিন্ন ইউনিয়নে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতি উপহার দিলেন নুরউদ্দিন চৌধুরী নয়ন এমপি রায়পুর হাসপাতালে করোনা রোগীদের জন্য অক্সিজেন সিলিন্ডার হস্তান্তর রায়পুরে ক্ষতিগ্রস্থ উদ্যোক্তাদের মাঝে প্রধানমন্ত্রীর প্রনোদনার চেক বিতরণ রায়পুর হাসপাতালে অক্সিজেন সিলিন্ডার ও অক্সিমিটার বিতরণ করলেন এমপি নয়ন

চেয়েছে রেলিং দিয়েছে সেতু!

স্টাফ রিপোর্টার / ৪৬৩ পড়া হয়েছে:
প্রকাশের সময়: মঙ্গলবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১:৪১ পূর্বাহ্ন

লক্ষ্মীপুর জেলার রায়পুর উপজেলার এক ইউনিয়নবাসী সরকারের কাছে ছেয়েছিল ব্রীজের রেলিং সংস্কার। আর এ আবেদনের পেক্ষিতে তাদেরকে দিয়েছে ৩ কোটি টাকার বরাদ্ধের নতুন সেতু। এ বরাদ্ধে কৃতজ্ঞতার আবদ্ধে খুশি এলাকাবাসী। উপজেলার উত্তর রায়পুর গ্রামে ডাকাতিয়া নদী উপর অবস্থিত চালতাতলী ব্রীজ এটি।

জানা যায়, এলাকার মানুষের দীর্ঘদিনের দাবীর ছিল ওই ব্রীজের রেলিংটি সংস্কার করে দেওয়ার। কারণে রেলিং ছাড়া ওই ব্রীজটি ঝুকিপূর্ণ ছিল। যার কারণে গত ১০ বছর যাবত এলাকাবাসী প্রায়ই দুর্ঘটনায় পতিত হতো। রিকশা, মোটরসাইকেল রাতের বেলায় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে পানিতে পরে যেত। তাই তারা সাবেক সংসদ সদস্য মোহাম্মদ নোমান এর নিকট ব্রীজের রেলিং সংস্কার এর জন্য আবেদন জানায়। নোমান এমপি বিষয়টি আমলে নিয়ে ব্যবস্থা গ্রহণ করেন। এরই পরেই একটি পরিদর্শক টিম এসে ব্রীজটি পরিদর্শন করে যায়। তারা নদীর সৌন্দর্য রক্ষা করে দৃষ্টি নন্দন একটি ব্রিজ নির্মাণের জন্য মতামত দেন সংশিষ্ঠ অধিদপ্তর ও মন্ত্রনালয়ে ।

স্থানীয় মাষ্টার বাড়ির আঃলীগ নেতা দেলোয়ার হোসেন দেলু বলেন, দীর্ঘদিন এই ছোট ব্রিজের উপর দিয়ে রেলিং না থাকায় ও সরু হওয়ার রাতে এ ব্রিজের উপর দিয়ে চলাচল করতে মানুষের কষ্ট হতো।  বিষয়টি লক্ষ্মীপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য, উপজেলা প্রকৌশলী ও সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানদের একাধিকবার জানিয়ে ছিলাম। ভেবেছিলাম কোনো সুফল হয়তো পাবো না। কিন্তু সরকারের একাধিক ব্যক্তি এটি পরিদর্শনে আসার পর শুনি যে ডাকাতিয়া নদীর উপর দৃষ্টিনন্দন একটি ব্রিজ হবে। পুরাতন ব্রিজটি প্রথমে একটি দ্রুতগামী পাওয়ার টিলারের (ট্রলি) ধাক্কায় ব্রিজটির একপাশের রেলিংয়ের একটি খুঁটি ভেঙে যায়। এরপর থেকে এলাকার মাদকাসক্ত বখাটেরা আস্তে-আস্তে রেলিং ভেঙে ভেতরের লোহাগুলো খুলে নিয়ে যায়।

৩ কোটি টাকা ব্যয়ের এই সেতুর নির্মাণ কাজের ঠিকাদার হলো মেসার্স রিয়াসাত এন্ড ব্রাদার্স । ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের রায়পুরের দায়িত্বে থাকা  কৌশিক সোহেল বলেন, প্রায় সাড়ে ৩কোটি টাকায় আমরা কাজটি পাই। কিন্তুু করোনা ভাইরাসের কারনে কাজটি শুরু করে এখন সরকারের নির্দেশে বন্ধ করে রেখেছি।

১০ নম্বর রায়পুর ইউপি চেয়ারম্যান সুমন চৌধুরী জানান, এই ব্রিজটি তিন নম্বর চরমোহনা ও ১০ নম্বর রায়পুর ইউনিয়নের জন্য গুরুত্বপূর্ণ। এ ব্রিজে রাতে চলাচল করতে গিয়ে অনেকেই নদীতে পড়ে মারাত্মক জখম হয়েছিলো। প্রধানমন্ত্রী ও সড়ক সেতু মন্ত্রীর কাছে কৃতজ্ঞতা যে তিনি রেলিং এর বদলে আমাদেরকে একটি নতুন ব্রিজ করে দিচ্ছেন।

রায়পুর উপজেলা নির্বাহী প্রকৌশলী হারুনুর রশিদ ও সহকারী প্রকৌশলী তাজুল ইসলাম জানান ব্রিজটি রেলিং এর বদলে দৃষ্টি নন্দন একটি ব্রিজ হচ্ছে আনুমানিক ১১০ ফুট লম্বা যা প্রস্থ ২৪ ফুট। আনুমানিক ৩৫ মিটার এবং গার্ডার ওয়াল দ্বারা দৃষ্টিনন্দন ব্রিজ হবে এটি। ব্রিজের জন্য ব্যয় হবে প্রায় সাড়ে তিন কোটি টাকা।

ল/আ, মো.ওয়াহিদুর রহমান মুরাদ